সর্বশেষ খবর

ভিভো আনছে 13 মিনিটে ব্যাটারি ফুল চার্জের প্রযুক্তি!

মোঃ শহর আলী 28.Jun.2019; 01:57:29

ফাস্ট চার্জিং এখন সব নতুন ফোনেই থাকে, কিন্তু ১৩ মিনিটেই ৪০০০ এমএএইচের ব্যাটারি পুরো চার্জ হয়ে যাবে— এমন ফিচার আগে কেউ আনেনি। সেই রেকর্ড তৈরি করতেই ভিভো আনতে চলেছে তাঁর নতুন ফোন, যেখানে থাকবে ১২০ ওয়াটের সুপার ফাস্ট চার্জিং প্রযুক্তি। আপাতত এই প্রকল্প রূপায়ণের চেষ্টায় ব্যস্ত ভিভো।

 আগামী সপ্তাহে সাংহাইতে হবে ‘মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেস’। সেখানে ৫জি প্রযুক্তির ফোনের সঙ্গে এই ফোনটিও পরীক্ষামূলক ভাবে চালিয়ে দেখানো হবে ভিভোর এই দাবি কতটা সত্য। সত্যিই কি পাঁচ মিনিটে ৪০০০ এমএএইচের ব্যাটারির ৫০ শতাংশ এবং ১৩ মিনিটে ১০০ শতাংশ চার্জ করতে পারবে ভিভোর এই ১২০ ওয়াটের সুপার ফাস্ট চার্জিং প্রযুক্তির ফোন?

যদি ভিভোর এই নতুন ফোন ১৩ মিনিটে ফুলচার্জ করতে সক্ষম হয় তা হলে এটিই হবে সেরা ফোন ব্যাটারি চার্জ ও ব্যাকআপের দিক থেকে। গত মাসেই শাওমি তাঁদের ‘১০০ ওয়াটের সুপার ফাস্ট চার্জিং’-এর স্মার্টফোন পরীক্ষা করে, যেখানে ১৭ মিনিটে একশো ১০০ চার্জ হয়ে যাচ্ছে বলে দাবি করা হয় কোম্পানির তরফ থেকে।

বাজারে ফাস্ট চার্জিং এর প্রবেশ ঘটেছিল ওয়ান প্লাসের হাত ধরে। ২০ ওয়াটের ফাস্ট চার্জিং প্রযুক্তিতে বাকি যে কোনও ফোনের থেকে তাড়াতাড়ি চার্জ হত ওয়ান প্লাসে এবং পরের বছরই ওয়ান প্লাস ছ’টি ম্যাকলারেন এডিশনের মাধ্যমে ৩০ ওয়াটের ফাস্ট চার্জিং প্রযুক্তি আসে বাজারে। এরপরই হুয়াই ‘মেট ২০ প্রো’তে ৪০ ওয়াটের ও অপো ‘ফাইন্ড এক্স’ এ ৫০ ওয়াটের সুপার ভিওওসি চার্জিং প্রযুক্তি নিয়ে আসে প্রতিযোগিতার বাজারে টিকে থাকতে।

তবে ভিভোর এই ১২০ ওয়াটের সুপার ফাস্ট চার্জিং আগ্রহ তৈরি করার সঙ্গে চিন্তার কারণও হয়ে দাঁড়িয়েছে। এত দ্রুত চার্জিং প্রযুক্তিতে ফোন অত্যাধিক গরম ও তাঁর থেকে বিপত্তি ঘটার আশঙ্কাও থেকে যাচ্ছে। আপাতত এই সুপার ফাস্ট চার্জিং ফোনের ভাগ্য নির্ভর করছে ‘মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেস’-এ কতটা ভাল কাজ করতে পারে তাঁর উপর।

আরো বিজ্ঞান